বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরারকে ‘পিটিয়ে হত্যা’

  •  
  •  
  •  
  •  

নিউজ ডেস্ক: দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় বিদ্যাপিঠ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) এর  শের-ই বাংলা হল থেকে আবরার ফাহাদ (২১) নামে এক ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবার ও সহপাঠিদের দাবি, আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

রোববার (৬অক্টোবর)দিবাগত রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার (৭অক্টোবর)সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সাধারণ ছাত্র ও কর্তৃপক্ষ ফাহাদের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

আবরার ফাহাদ ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি কুষ্টিয়ায়।

নিহত আবরারের সহপাঠিরা জানায়, গতকাল রাত আটটার দিকে শের-ই বাংলা হলের এক হাজার ১১ নম্বর কক্ষ থেকে কয়েকজন আবরারকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর রাত দুইটা পর্যন্ত তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

সহপাঠীদের ধারণা, ২ হাজার ১১ নম্বর রুমে নিয়ে তাকে পিটানো হয়। পরে শের-ই বাংলা হলের একতলা ও দুই তলার মাঝখানের সিঁড়িতে আবরারকে পড়ে থাকতে দেখেন তারা।

এ ব্যাপারে বুয়েটের ডাক্তার মাসুক এলাহী বলেন, ‘সহপাঠীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে শের-ই বাংলা হলের একতলা ও দুই তলার মাঝামাঝি জায়গায় ফাহাদের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখি। তার শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।’

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাব হোসেন বিষয়টি নিশ্চিতে করে বলেন, কে বা কারা ফাহাদকে হত্যা করেছে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানতে পারেনি ।

তবে বুয়েট কর্তৃপক্ষ নিহত আবরারের বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেননি।

এদিকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতৃত্বে হলের ভেতরে নিহত আবরারকে পিাটয়ে হত্যার প্রতিবাদে আজ ১২টায় বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

এই বিক্ষাভ মিছিল রাজু ভাস্কর্য থেকে বুয়েট অভিমুখে যাত্রা করবে বলে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ সূত্রে জানা যায়।

ঢা/ইআ

(Visited 6 times, 1 visits today)