৫ নভেম্বর পোশাক খাতের দ্বিতীয় টেকসই অ্যাপারেল ফোরাম

  •  
  •  
  •  
  •  

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : বাংলাদেশে পোশাক শিল্পের টেকসই অগ্রযাত্রা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আগামী ৫ নভেম্বর ঢাকায় বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে আয়োজন করা হচ্ছে ২য় টেকসই অ্যাপারেল ফোরাম। যৌথভাবে এর আয়োজন করছে বাংলাদেশ অ্যাপারেল এক্সচেঞ্জ (বিএই) ও বিজিএমইএ।

সোমবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে বিএইর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং সিইও মোস্তাফিজ উদ্দিন বলেন, পোশাক শিল্পের জন্য সাস্টেনিবিলিটি কোনো পছন্দ নয়, অত্যাবশ্যাকীয়। তাই দেশের পোশাক শিল্পকে টেকসই করার লক্ষ্যে এবং এর জন্য প্রয়োজনীয় আলোচনার সূত্রপাত করতে ২য় টেকশই অ্যাপারেল ফোরামের আয়োজন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, এই ফোরামের আলোচনায় উঠে আসা সুপারিশগুলো নিয়ে পোশাক শিল্পের জন্য একটি টেকসই রোডম্যাপ তৈরি করা হবে।

বিজিএমইএর সভাপতি ড. রুবানা হক বলেন, বাংলাদেশে এখন বহু কমপ্লায়েন্স কারখানা গড়ে উঠেছে। সবচেয়ে বেশি সবুজ কারখানা এখন বাংলাদেশে। দেশের কারখানাগুলোতে কাজের পরিববেশও এখন অনেক ভাল।

বাংলাদেশস্থ নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভ্যারওয়ে বলেন, বাংলাদেশের পোশাক শিল্পে ইতোমধ্যে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। বাংলাদেশে এখন বিশ্ব সেরা পোশাক কারখানা অবস্থিত। এটি নিঃসন্দেহে আনন্দের বিষয় যে, বাংলাদেশের পোশাক কারখানাগুলোতে নিয়োজিত লোক এবং ব্যবহৃত প্রযুক্তি উন্নয়নের জন্য বিনিয়োগ করছে। নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রায় সহযাত্রী হিসেবে থাকতে বদ্ধপরিকর।

তিনি বলেন, টেকসই পোশাক শিল্পের জন্য এক সাথে কাজ করা সবার দায়িত্ব।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সারাবিশ্ব থেকে ৫০ এর বেশি বিশেষজ্ঞ পোশাক খাতে স্বচ্ছতা, মানবিকতা, ক্রয় সংক্রান্ত ও জলবায়ুর পরিবর্তনের ওপর ৫টি প্যানেল আলোচনা করবে।

এই ইভেন্টে একটি টেকসই সেন্টার স্থাপন করা হবে, যেখানে দেশের পোশাক কারখানাগুলোর উদ্ভাবন এবং পোশাকখাতে ব্যবহৃত নিত্য নতুন টেকনোলজি প্রদর্শিত হবে। টেকসই সেন্টার পোশাক শিল্পে পরিবেশবান্ধব টেকনোলোজি ব্যবহার উৎসাহিত করবে, যা শিল্পে কার্বন ফুটপ্রিন্ট কমাতে সহায়তা করবে।

বাংলাদেশস্থ নেদারল্যান্ডস দূতাবাস এই ২য় টেকসই অ্যাপারেল ফোরামে টাইটেল স্পন্সর হিসেবে পৃষ্টপোষকতা করছে। এছাড়াও পৃষ্টপোষকতা করছে বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ড এইচ অ্যান্ড এম, বেটার ওয়ার্ক বাংলাদেশ এবং সি অ্যান্ড এ ফাউন্ডেশন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত শার্লটা স্লাইটার, বিজিএমইএর সহ-সভাপতি (অর্থ) মোহাম্মদ ফিরোজ, ব্র্যান্ড এইচ অ্যান্ড এমের কান্ট্রি ম্যানেজার জিয়াউর রহমান প্রমুখ।

ঢা/এমএম

(Visited 1 times, 1 visits today)