সৃজিত মিথিলার আজকের বিয়েতে কারা থাকছেন?

  •  
  •  
  •  
  •  

নিউজ ডেস্ক : তিনি পরিচালক হলে কি হবে। তাঁর ফ‍্যান ফলোয়িং কোনও ফিল্মস্টার তেকে কম কোথায়। বলা যেতে পারে তারকাদের থেকেও বেশি উৎসাহ থাকে তাঁকে নিয়ে।

ক্যারিয়ারের প্রথম ছবি থেকেই পিছনে ফিরে আর তাকাতে হয়নি সৃজিতকে। শুরু থেকেই সুপারহিট।

ক্যারিয়ারের এই লম্বা সফরে তাঁর সঙ্গে অনেক নায়িকারই লিঙ্কআপের খবর পাওয়া যায়। কিন্তু কখনওই কাউকেই নাকি কমিট করেননি সৃজিত।

তবে যার সঙ্গে সম্পর্কের কথা সবসময়ই পসিটিভ বডি ল্যাঙ্গোয়েজই প্রকাশ করেছেন সৃজিত, তিনি হলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, সঞ্চালক এবং গায়িকা রফিয়াত রসিদ মিথিলা।

বাংলাদেশে যাতায়াত তো ছিলই সৃজিতের। কখনও কাজের সূত্রে তো কখনও মিথিলার জন্য।

এদিকে আবার সৃজিত যখনই বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করেছেন তখন প্রায় সবসময়ই দেখা গিয়েছে মিথিলাকে সেই পার্টিতে।

অর্থাৎ নিজের ক্লোজ সার্কিটে এই বিষয়টা তিনি পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন ‘সি ইজ দ্য ওয়ান’।

মিথিলাকে সঙ্গে নিয়ে একটি ছবি ট্যুইটও করেছেন সৃজিত ৷ সঙ্গে এক দীর্ঘ কবিতা ৷

তবে সৃজিতের বন্ধু মহলে সবার মনে একটাই প্রশ্ন ছিল। কাজ পাগলা সৃজিত কি বিয়ের জন‍্য সময় বের করে উঠতে পারবেন?

কারণ, কিছুদিন আগেই তাঁর ছবি ‘গুমনামি’র যে বক্স অফিস সাকসেস, এখনও তার তৃপ্তির স্বাদ আস্বাদনে ব‍্যস্ত সৃজিত।

পাশাপাশি তাঁর নতুন ওয়েব সিরিজ ফেলুদার প্রি-প্রোডাকশনের কাজও চলছে। কি করে এর মধ‍্যে সময় বের করবেন তিনি?

কিন্তু না। সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শেষে সাত পাকে বাঁধা পরছেন সৃজিত ও মিথিলা।

হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। যে সম্পর্ক নিয়ে মানুষের মনে এতদিন এত প্রশ্ন ছিল তার এবার ইতি টানছেন সৃজিত এবং মিথিলা।

শোনা যাচ্ছে আজ সন্ধ‍্যেবেলায় রেজিস্ট্রি সেরে ফেলবেন দুজনে। ঠিক সেই কারণেই দুই পরিবারের সদস্যরা একত্রিত হয়েছেন সৃজিতের বাড়িতে।

এ নিয়ে নতুন বধু বরণে থাকছে নানা আয়োজনও ।

এছাড়াও দুজনেরই খুব কাছের বন্ধুরাও আ‍্যটেন্ড করবেন রেজিসট্রির এই অনুষ্ঠান। আজ বিয়ে সারলেও এখনই ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুদের জন‍্য পার্টি নয়। সেই অনুষ্ঠান হবে আরও কদিন বাদে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বিয়ে করছেন সৃজিত-মিথিলা। এই খবর পাকাপোক্ত। ইতোমধ্যে সবাই জেনেও গেছেন। তবে তাদের বিয়েতে ঢাকা-কলকাতার তারকাদের মিলন মেলা বসবে কিনা, সে বিষয়টি এখনো পরিস্কার নয়।

কলকাতার গণমাধ্যমকে সৃজিত-মিথিলা জানিয়েছেন, ঘরোয়াভাবে বিয়ে করতে চলেছেন তারা। দুই পরিবারের আত্মীয়-স্বজন ছাড়া তেমন আর কেউ থাকবেন না। ঢাকা কিংবা কলকাতার শোবিজের বন্ধু-বান্ধব কিংবা কলিগদের থাকার সম্ভাবনাও নেই বলেই জানিয়েছেন তারা।

তবে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, সৃজিত-মিথিলার বিয়েতে তাদের আত্মীয়-স্বজনদের পাশাপাশি উপস্থিত থাকবেন শোবিজে সৃজিতের ঘনিষ্ঠ কিছু বন্ধু বান্ধব। এরমধ্যে নাম আছে অভিনেতা রুদ্রনীল, কবি শ্রীজাত, যিশু, ইন্দ্রদীপ, সংগীতশিল্পী অনুপম ও নীলাঞ্জনার।

জমকালো আয়োজনে বিয়ের অনুষ্ঠান না হলেও এরইমধ্যে নাকি সৃজিতের দক্ষিণ কলকাতার ফ্ল্যাটে রীতিমত উৎসব শুরু হয়ে গেছে। খাঁটি বাঙালি রান্না হচ্ছে সেখানে। সন্ধ্যেবেলায় হবে বিরিয়ানি। আর জামাইয়ের জন্য বাংলাদেশ থেকে ২ কেজি ওজনের চারটি ইলিশ নিয়ে গেছেন মিথিলার বাবা।

বিয়ের সাজ-সজ্জা নিয়েও এই সময়কে দেয়া সাক্ষাৎকারে সৃজিত-মিথিলা জানিয়েছেন, সন্ধেবেলা সৃজিত পরবেন পাজামা, পাঞ্জাবি, জহরকোট আর মিথিলা পরছেন লাল জামদানি।

যাই হোক না কেন বিয়ের খবর সবসময়ই খুশির খবর। তাই সৃজিত-মিথিলার এই নতুন জীবনের যাত্রাপথে তাদের জন্য অনেক শুভেচ্ছা।

ঢা/এমএম

(Visited 8 times, 1 visits today)