সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মানববন্ধন

সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মানববন্ধন
  •  
  •  
  •  
  •  

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জে দিরাই থানার মধুরাপুর গ্রামে প্রতিপক্ষ কামালপুর গ্রামের কর্তৃক বাড়িঘর লুটপাঠ, হামলা, মামলা, ভাংচুর ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিকালে শহরের আলফাত উদ্দিন স্কয়ারে মধুরাপুর গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বর্গের আয়োজনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন মধুরাপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্বা শামসুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইফরাজ আলী, বীর মুক্তিযোদ্বা আব্দুল হান্নান এবং মুক্তযোদ্বার সন্তান সাইফুল আলম। এছাড়া শিক্ষার্থী মাসুদ আলম,পান্না, আজমীলা, আজিমা, তানজিনা, মাহফুজা, বাবলু মিয়া এবং লিজা এরাও বক্তব্য রাখেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ১৩ অক্টোবর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় মুক্তিযোদ্ধা শামসুল হকের বসতবাড়ি ও বাড়ির সামনে পূর্ব দিকে অবস্থি সরকারি সড়কে পূর্ব বিরোধের জের ধরে কামালপুর গ্রামের নুর জালাল, আব্দুল খালিক, ফারুকসহ তাদের সহযোগিরা। এছাড়াও মধুরাপুর গ্রামের সুজন, সুমন, তোফায়েল, শহীদ, মুব্বাসির খা ঐক্যবদ্ধভাবে মুক্তিযোদ্বার বাড়িতে পরিকল্পিত হামলা করে মুক্তযোদ্বা পরিবারসহ আত্নীয়দেরকে দেশীয় অস্ত্রধারা মারধর করে।

এতে গুরুতর আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। সাথে সাথে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্বে দিরাই থানায় অভিযোগ দায়ের করি।

আরো বলেন জেলা পুলিশ সুপার এর কার্যালয়ের সামনে মানবন্ধনে মিলিত হলে পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএম আমাদেরকে আদালতে মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন। আমরা আমাদের প্রাণ রক্ষা,ঘরবাড়ি ও সহায় সম্পদ রক্ষায় মাননীয় স্বররাষ্ট্র মন্ত্রীর কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

জেলা পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএম বলেন, কিছুদিন পূর্বে ঐগ্রামে দু পক্ষের সংঘর্ষে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। তার পরই আমরা গ্রামে এক সপ্তাহ পুলিশ মোতায়েন করেছিলাম। দুর্গা উৎসবের কারণে পুলিশ সদস্যরা ডিউটিতে চলে গেলে ঐ গ্রামে ভাঙচুর এর ঘটনা ঘটেছে বলে আমাদের কাছে খবর আসছে। আগামীকাল থেকে আবার পুলিশ যাবে।

উল্লেখ্য, গত ১৩ অক্টোবর সংঘর্ষের এক পর্যায়ে কামালপুর গ্রামের নুর মোহাম্মদ নিহত হন। যার প্রেক্ষিতে দিরাই থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

ঢা/এএইচ/এসআর

অক্টোবর ২৬, ২০২০ ৬:৫৯

(Visited 17 times, 1 visits today)