সাড়ে ১৪ লাখ টাকা ফিরিয়ে দিলেন অটোরিক্সা চালক

সাড়ে ১৪ লাখ টাকা ফিরিয়ে দিলেন অটোরিক্সা চালক
  •  
  •  
  •  
  •  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : হারিয়ে যাওয়া সাড়ে ১৪ লাখ টাকা প্রকৃত মালিককে ফিরিয়ে দিয়ে সততার এক উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে মনির হোসেন নামের এক সিএনজি অটোরিক্সা চালক।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় ঘটনাটি ঘটে।

চালক মনির সদর উপজেলার রামরাইল গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, সদর উপজেরার চিনাইর গ্রামের রহিমা বেগম বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে জায়গা কেনার ১৪ লাখ টাকা ও নিকট আত্মীয় তিনজনকে সাথে নিয়ে মনিরের সিএনজি অটোরিক্সাযোগে বাড়ি ফিরে। এসময় চারজনই ভুলে টাকার ব্যাগ ছাড়াই অটোরিক্সা থেকে নেমে পড়ে।

শনিবার চালক মনির তার অটোরিক্সার সিটের পিছনে ব্যাগ ভর্তি টাকা দেখতে পায়। সে বিষয়টি তাৎক্ষণিক ভাবে তার ফুফা উপজেলার বনগজ গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সানু মিয়াকে অবগত করে। সানু মিয়া ব্যাগে থাকা টাকার সাথে জমির দলিল, ব্যাংকের চেক বই ও রহিমা বেগমের একটি মোবাইল ফোন নম্বর খোঁজে পায়। বিষয়টি তিনি আখাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে অবগত করেন।

রোববার দুপুরে চালক মনির তার ফুফাকে সাথে নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে টাকার ব্যাগটি বুঝিয়ে দেন। পরে চেয়ারম্যানও উভয় পক্ষের লোকজনের উপস্থিতিতে টাকাগুলো রহিমা বেগমকে বুঝিয়ে দেয়।

সিএনজি অটোরিক্সা চালক মনির জানান, যাত্রী নামিয়ে আমি বাড়িতে চলে যায়। পরদিন শুক্রবার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে চলে যায়। শনিবার সিএনজি অটোরিক্সাটি পরিস্কার করতে গিয়ে টাকার ব্যাগটি চোখে পড়ে। টাকাগুলো প্রকৃত মালিককে ফিরিয়ে দিতে পেরে আমি খুবই খুশি।

রহিমা বেগম জানান, টাকার ব্যাগটির সন্ধ্যান পেতে থানা পুলিশ পর্যন্ত করি। চালককেও অনেক খোঁজাখুঁজি করি। অবশেষে আজ টাকাসহ মূল্যবান কাগজপত্র হাতে পেয়েছি।

আখাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কাশেম ভূইয়া বলেন, চালক টাকাগুলো আমার কাছে জমা দিলে প্রকৃত মালিককে ডেকে এনে সেই টাকা বুঝিয়ে দেয়া হয়।

ঢা/জেবি/আরকেএস

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ ৯:২৮

(Visited 91 times, 1 visits today)