শিক্ষার্থী শূন্যতায় ক্যাম্পাসের বট বৃক্ষটি

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি: চিরচেনা গাছের ছায়া তলায় রোজ দেখা মিলতো প্রানখোলা হাসিতে আড্ডারত একদল শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থী শূন্যে খা খা করছে রেইট্রি, বট আর মেহেগনি গাছের ছায়াতলাটি।

এছাড়াও কলেজের ছাতিম তল কিংবা প্রশাসনিক ভবনের নিছে সাইকেল চত্ত্বরে। ক্যাম্পাসের প্রতিটি জায়গায় ছিল শিক্ষার্থীদের আনাগোনা। এছাড়াও যেখানে হাসিঠাট্টা সহ দলবদ্ধ লেখাপড়ার চিত্রটির দেখাও মিলতো।

ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত সরকারি বাঙলা কলেজ ঈদ-উল-ফিতর সহ গ্রীষ্মকালীন অবকাশ মিলিয়ে প্রায় এক মাসের ছুটিতে আছে ক্যাম্পাসটি সকল শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় প্রতিদিনের রুটিন মতো দেখা যাচ্ছে না এসকল শিক্ষার্থীদের। অধিকাংশ শিক্ষার্থী বিভিন্ন জেলা থেকে এসে লেখাপড়া করায় প্রায় সকলেই এই ছুটিতে গ্রামে চলে গেছে নিজের পরিবারের সাথে ঈদ পালন করতে। তবে আবাসিক শিক্ষার্থীদের কিছু সময় দেখা গেলেও অনাবাসিক বিশাল অংকের শিক্ষার্থীদের দেখা মেলে না।

তাদের অনেকেই গ্রামে চলে যাওয়ায়, ফোন কল দেওয়া হলে সমাজকর্ম বিভাগের মেহেদি হাসান বলেন, অনেক দিনের ছুটি পাওয়ার পরিবারের সাথে ঈদের আনন্দ উদযাপন করতে বাড়িতে এসেছি।

ক্যাম্পাসের বন্ধুদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে না পারায় বেশ খারাপ লাগছে। ভুলতে পারছি ক্যাম্পাসের সেই আড্ডার দেওয়ার মূহুর্ত গুলো।

তিনি আরো বলেন, একসাথে আড্ডা দিতে না পারায় আমাদের মন খারাপ হলেও তারা যে তাদের পরিবারের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে পারবে এর জন্য আমরা বেশ আনন্দিত। তাছাড়া ঈদের পরেই আমরা আবার মিলিত হয়ে আবার আড্ডা দিতে পারবো।

দীর্ঘ সময় লেখাপড়ার ব্যাস্ততার পর এই ছুটিতে মা-বাবার সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে যাওয়া শিক্ষার্থীরা ক্লাশ শুরু হওয়ার সাথে সাথেই বন্ধুদের সাথে মিলিত হওয়ার আশ্বাস দেন। এছাড়াও যারা কলেজের আশে পাশেই থাকেন তারাও গ্রামের বাড়িতে যাওয়া বন্ধুদের সুন্দর ভ্রমনের পর অতি শিগ্রই ক্যাম্পাসে এসে আড্ডা দেওয়ার অনুরোধ জানান।

ঢা/মমি

(Visited 1 times, 1 visits today)