লঞ্চের কেবিনে নিহত নারীর পরিচয় মিলেছে

লঞ্চের কেবিনে নিহত নারীর পরিচয় মিলেছে
  •  
  •  
  •  
  •  

বরিশাল প্রতিনিধি : রাজধানী ঢাকা থেকে বরিশালগামী এমভি পারাবত-১১ লঞ্চের কেবিনে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যাকাণ্ডের শিকার নারীর পরিচয় মিলেছে। ঢাকার পল্লবী এলাকার বাসিন্দা লাবণী বেগম নামের ওই নারীর দুই ছেলে আছে। তার স্বামী একজন ইলেকট্রিশিয়ান। তাদের গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায়।

নারীর স্বজনেরা মঙ্গলবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বরিশালে তাকে শনাক্ত করেন।

বরিশাল নৌ-পুলিশের একটি সূত্র তথ্য নিশ্চিত করেছে। এদিকে আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বরিশাল নৌ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অলক চৌধুরী বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করলেও এখন পর্যন্ত ঘাতককে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

তবে পুলিশ বলছে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে পেরেছে। কিন্তু তদন্তের স্বার্থে তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নৌ-পুলিশ পরিদর্শক আবদুল্লাহ-আল মামুন জানান, চাকরির প্রলোভনে গত রোববার ঢাকার সদরঘাট থেকে একজনের সঙ্গে লঞ্চযোগে বরিশাল আসছিলেন লাবণী। ওই দিন রাত ৯টা পর্যন্ত লাবণীর সঙ্গে ফোনে কথা হয় তার বাবার। পরের দিন সোমবার সকালে লঞ্চের কেবিন থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই নারীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটের পরিদর্শক মামুনুর রশিদ। তবে তার সঙ্গে থাকা ওড়না ও ব্যাগসহ অন্য আলামত নিয়ে যাওয়ায় পুলিশ তাৎক্ষণিক ওই নারীর পরিচয় উদঘাটন করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত আঙ্গুলের ছাপ অনুযায়ী তার পরিচয় উদঘাটন করে পুলিশ। পরে তার স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পুলিশ।

নৌ-পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতাল মর্গের হিমঘরে ওই নারীর লাশ শনাক্ত করেন তার বাবা ও ভাই। এর আগে সোমবার ওই নারীর লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।

ঢা/জিএমএস/আরকেএস

(Visited 104 times, 1 visits today)