মেহেরপুরে চলছে দুর্গাপূজার শেষ প্রস্তুতি

  •  
  •  
  •  
  •  

মেহেরপুর প্রতিনিধি: অসুরনাশিনী দেবী দুর্গাকে বরণ করার পাশাপাশি ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনায় পূজা পালনের প্রস্তুতি চলছে মেহেরপুরে। আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে প্রতিমা গুলোতে দেওয়া হচ্ছে রংতুলির শেষ আছড়।

করিগরদের নিপুন হাতে গড়া প্রতিমা গুলোর প্রতিটি অঙ্গে দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন রঙ। মনের মাধুরী মিশিয়ে নানা রঙে সজ্জিত করে প্রতিমা গুলোকে ফুটিয়ে তুলছে করিগররা। সময় যেহেতু বেশি নেই তাই শেষ মূহুর্তের ব্যাস্ততাও বেড়ে বেশ। আগামী ৪ অক্টোবর শুরু হবে দূর্গা পূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা।

এ বছর সারা দেশে প্রায় ৩১ হাজার পূজা মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে। সেইসাথে মেহেরপুর জেলা ৪০ মন্ডপে দূগা পূজা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে মেহেরপুর সদরে ১৪টি গাংনীতে ২২টি ও মুজিবনগরে ৬টি মন্ডপে পূজা উদজাপন করা হবে।

মেহেরপুরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ ঘুরে দেখা যায় কোন চলছে মাটির শেষ প্রলেপ দেওয়ার কাজ আবার কোনটাতে চলছে রঙ তুলির কাজ। তবে বেশির ভাগ মন্ডপেই চলছে রঙ-তুলির কাজ।

৪২ বছর ধরে করে আসা প্রতিমা তৈরির কাজ কার্তিক চন্দ্র শর্মা বলেন, প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ এখন চলছে রঙ করার কাজ। আগামী ২দিনের ভিতর পূজা তৈরির সকল কাজ শেষ হয়ে যাবে। মেহেরপুরের ঐতিহাসিক নায়েব বাড়ি পূজা মন্ডপের পুরোহিত জিৎ মূখার্জি জানান, এবার পূজার প্রস্তুতি বেশ জরেসরেই চলছে। আগামী ৪ অক্টোবর শুরু হবে মূল অনুষ্ঠান।

নায়েব বাড়ি পূজা মন্ডপের সভাপতি শ্রী চিত্ত রঞ্জন সাহা জানান, আমরা কয়েক মাস আগে থেকেই পূজার কাজ শুরু করেছিলাম। আমাদের সবচেয়ে বড় উৎসব দেবি দূর্গার আগমন উপলক্ষে ইতি মধ্যে সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করেছি।

বকুল তলা পূজা মন্ডপের সভাপতি অনন্ত হালদার বলেন, আমাদের পূজা তৈরির কাজ শেষ। বাকি আছে শুধু রঙ করার কাজ আমামী কাল থেকে শুরু হবে। দেবী দুর্গার আগমনে এ বছর বেশ উৎসাহ উদ্দিপনা বিরাজ করছে আমাদের সবার মাঝে।

বামন পাড়া পূজা মন্ডপের সাধারণ সম্পাদক জানান, প্রতিমায় মাটির প্রলেপ শেষ চলছে রঙ তুলির কাজ। কয়েকদিনের মধ্যে পূজার সকল প্রস্তিুতি সম্পন্ন হয়ে যাবে। আমরা প্রতিবছর বেশ আনন্দের সাথে পূজা উদজাপন করি। এ বছরও উৎসবের কোন কমতি হবে না।

মেহেরপুর জেলা পূজা উদজাপন পরিষদের সভাপতি ডা. রমেশ চন্দ্র নাথ জানান, এ বছর মেহেরপুর জেলাতে ৪০টি পূজা মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। দেবী দুর্গাার আগমন উপলক্ষে ইতিমধ্যে প্রায় সব পূজা মন্ডপে পূজা তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে। এছাড়া তিনি জানান, এ বছর পূজা উদজাপনের জন্য সরকারি কোন অনুদান এখনো পাইনি। কবে আশা করছি অল্প কয়েকদিনের মধ্যে পেয়ে যাবো।

মেহেরপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার শেখ জাহিদুল ইসলাম জানান, পূজা উপলক্ষে আইন শৃঙ্কলা স্বাভাবিক রাখেতে সব ধরনরে প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। আমরা আশা করছি সুষ্ঠ ও সুন্দর উৎসব মূখর পরিবেশে দুর্গা পূজা পালন করবে মেহেরপুরবাসী।

এদিকে আসন্ন দূর্গা পূজার আগমন উপলক্ষে ব্যাপক উৎনাহ উদ্দিপনা লক্ষ করা যাচ্ছে হিন্দুধর্মাবল্বী তরুন তরুনীদের উপর। মেহেরপুরের পোশাকের দোকন গুলোতেও বেড়েছে বেচাকেনা।

ঢা/এমএফআর/ইআ

সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ ৮:২৫

(Visited 10 times, 1 visits today)