বেনাপোল দিয়ে দেশ ত্যাগ করেছিলেন পিকে হালদার!

  •  
  •  
  •  
  •  

ঢাকা১৮প্রতিবেদক: প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগ নিয়ে প্রশান্ত কুমার হালদার দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞায় দেওয়া দুর্নীতি দমন কমিশনের চিঠি ইমিগ্রেশন পুলিশ হাতে পাওয়ার দুইঘণ্টা নয় মিনিট আগেই পিকে হালদার বেনাপোল দিয়ে বিদেশে পালিয়ে গিয়েছিলেন। ঘটনাটি ঘটেছিলো ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর বিকেলে।

সোমবার (০১ মার্চ) এমন তথ্য জানিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) ইমিগ্রেশন শাখা।

ডিপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক জানান, ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর পি কে হালদার বিদেশে পালিয়ে যান। বর্তমানে পরিবার-পরিজন নিয়ে কানাডায় বিলাসী জীবনযাপন করছেন তিনি। গত বছরের ২২ অক্টোবর ডাক বিভাগের মাধ্যমে পাঠানো চিঠি পৌঁছায় ২৩ অক্টোবর বিকাল চারটায়। আর পিকে হালদার সীমান্ত অতিক্রম করেন বিকেল ৩টা ৩৭ মিনিটে।

দুদকের মামলায় জানা যায়, রিলায়েন্স ফিন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক থাকা অবস্থায় আত্মীয়স্বজনকে দিয়ে ৩৯টি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন পি কে হালদার। এসব প্রতিষ্ঠানের পরিচালক হিসেবে থাকা ৮৩ জনের ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে কৌশলে সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন তিনি ও তার সহযোগীরা। এর মধ্যে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকেই ১৫০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে পি কে হালদারের বিরুদ্ধে।

ঢা/এসআর

মার্চ ১, ২০২১ ৮:৪৮

(Visited 43 times, 1 visits today)