বিধবার বয়স্ক ভাতায় ইউপি সদস্যের থাবা

  •  
  •  
  •  
  •  

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: বিধবা নারীর বয়স্ক ভাতায় ভাগ বসালো ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য। ঘটনাটি ঘটেছে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ বালিগাঁও গ্রামে।

ঘটনাস্থলে গেলে ভুক্তভোগী সোনাবান বেগম অভিযোগ করে বলেন আমার শ্বাশুড়ি মৃত সামারুন বেগমের বয়স্ক ভাতার টাকা আমি ইউনিয়ন থেকে আনতে গেলে আমাদের দক্ষিণ বালিগাঁও গ্রামের মেম্বার মোঃ সুরমান আলী আমার কাছ থেকে ১০০০ টাকা নিয়ে যায়।

আমি ওনাকে জিজ্ঞেস করেছি কেনো আমার শ্বাশুড়ির বয়স্ক ভাতা থেকে আপনি ১০০০ টাকা নিবেন, তিনি (মেম্বার) আমাকে বলেছেন ওনাকে এ টাকা না দিলে আমি কোন টাকাই পাবো না, কারন আমার শ্বাশুড়ি মারা গেছেন, পরবর্তীতে উনি বয়স্ক ভাতার টাকা থেকে এক হাজার টাকা কেটে রেখে দেন।

ভুক্তভোগী বলেন যাকে ভোট দিয়ে জয়লাভ করিয়েছি সেই আমাদের গরিবের টাকায় ভাগ বসায়।

ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যের এমন আচরনে স্হানীয়দের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মোঃ সুরমান আলী সাথে জানতে চাইলে তিনি বলেন.আমার সাথেন ওই মহিলার দেখা বা কথা হয়নি।

এছাড়াও বলেন,আমার শুনাম নষ্ট করতে প্রতিপক্ষরা আমার নামে মিথ্যা বদনাম ছড়াছে। কমলগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল হান্নানকে একধিকবার মোবাইল ফোন নাম্বারে ০১৭১৫৭৬৪৪৪৬ ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ঢা/মমি

মে ১৯, ২০২০ ৯:৫১

(Visited 16 times, 1 visits today)