বক্তব্য প্রচারে গণমাধ্যমের আরো সতর্কতা চায় হাইকোর্ট

নিউজ ডেস্ক: আদালতের দেয়া নির্দেশনা বা উপস্থাপিত বক্তব্য কিংবা মতামত প্রকাশে গণমাধ্যমের আরো সতর্কতা এবং দায়িত্বশীলতা আশা করেছেন হাইকোর্ট।

আজ বুধবার (৭ আগষ্ট) জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিটের শুনানি শেষে হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলী সমন্বয়ে গঠিত অবকাশকালীন দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

হাইকোর্টের আদেশ নিয়ে সতর্কতা অবলম্বন করে দায়িত্বশীলতার সাথে খবর প্রচারের জন্য গণমাধ্যমকে এ আহ্বান জানানো হয়।

গত বুধবার (৩১ জুলাই) মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ির এক নম্বর ফেরিঘাটে যুগ্ম সচিবের জন্য তিন ঘণ্টা ফেরি দাঁড়িয়ে থাকলে স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যু হয়।

তার মৃত্যুতে ক্ষতিপূরণ চেয়ে করা রিটে হাইকোর্ট বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ ভিআইপি নয়, বাকিরা সবাই রাষ্ট্রের কর্মচারী।’ আদালতের এমন বক্তব্য নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ভিআইপি প্রটোকল চেয়ে বিচারপতির রিট আবেদন করা নিয়ে খবর প্রচার করা হয়।

এরপর আদালতের সংবাদ প্রচারে তথা ‘প্রটোকল’ নিয়ে কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে প্রতিবেদন নিয়ে করা রিটের শুনানিতে এমন মন্তব্য করেন আদালত।

এ সময় আদালত বলেন, সাংবাদিকদের প্রতি আমাদের অনেক শ্রদ্ধা। সাংবাদিকরা উচ্চ মর্যাদার অধিকারী। রাষ্ট্র ও সমাজের মুখপাত্র হিসেবে সাংবাদিকদের কাছে আরও দায়িত্বশীলতা প্রত্যাশা করি।

একইসঙ্গে, সাংবিধানিক পদে থাকায় রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাক্রম অনুসারে নবম ক্রমিকে থাকা সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের প্রটোকল দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

প্রত্যেক জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও প্রটোকলের দায়িত্বে থাকা সংশ্লিষ্টদের এ দায়িত্ব পালন করতে বলা হয়েছে। আদালত আদেশে বলেছেন, প্রটোকল নিয়ে সংবাদ প্রকাশে গণমাধ্যমকে আরও সতর্ক হতে হবে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী একরামুল হক টুটুল। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মামুন মাহবুব ও তাপস বিশ্বাস।

শুনানিকালে আদালত যা বলেন

এর আগে বিচারপতিসহ অন্যদের প্রটোকলের বিষয়ে বিভিন্ন খবরে যে নিষেধাজ্ঞার কথা বলা হয়েছে, বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ সে ধরনের কোনও আদেশ দেননি। বিষয়টি ছিল ওই আদালতের মন্তব্য।

এরপর আদালত সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিসহ সাংবিধানিক পদধারীদের ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্স অনুসারে আগের মতো প্রটোকল দিতে এবং হাইকোর্টের আদেশ নিয়ে নিউজ করার ক্ষেত্রে গণমাধ্যমকে সতর্ক থাকারও নির্দেশ দেন।

আইনজীবী একরামুল হক টুটুল বলেন, ‘একজন বিচারপতির প্রটোকল নিয়ে কিছু অনলাইন প্রতিবেদন করেছিল। প্রতিবেদনগুলো চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হলে আদালত এই আদেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি আদালত বলেছেন, প্রটোকল নিয়ে সংবাদ প্রকাশে গণমাধ্যমকে আরও সতর্ক হতে হবে।’

রিট আবেদনে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির প্রটোকল নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি থেকে ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়াকে বিরত রাখতে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা প্রশ্নে রুল জারির আরজি করা হয়।

ঢা/এমএম

(Visited 1 times, 1 visits today)