নিরাপত্তা নিছিদ্র করতে তৎপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

  •  
  •  
  •  
  •  

নুরুল আমিন হাসান : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সকল প্রকার সহিংসতা ঠেকাতে কঠোর তৎপর রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, আবাসিক হোটেল, রাজধানীর মূল প্রবেশ পথ, সন্দেভাজন বাসা বাড়ি ও সন্দেহভাজন গাড়ী কিংছুই বাদ পড়ছে না নজরদারি ও তল্লাশী থেকে। রাজধানী জুড়েই রয়েছে সেনাবাহিনীর, র‌্যাব ও পুলিশের টহল টিম। এছাড়াও সাদা পোষাকে নজরদারির পাশাপাশি রয়েছে রয়েছে গোয়েন্দা নজরদারিও।

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে খবর নিয়ে ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে এসব তথ্য জানা যায়।

রাজধানীর আবাসিক হোটেলগুলোতে বহিরাগতদের অবস্থান ঠেকাতে তল্লাশি শুরু হয়েছে। সেই সাথে কে বা কারা হোটেলে অবস্থান করছেন তাও রেজিস্টার খাতা দেখে ঝাচাই বাছাই করা হচ্ছে। সেই সাথে প্রতিটি থানা পুলিশও থানা এলাকার এলাকার বাসা বাড়িতেও তল্লাশি চালাচ্ছে। অপরদিকে রাজধানীর মূল প্রবেশ পথ সায়েদাবাদ, গাবতলী ও আব্দুল্লাহপুরে দেখা যায় পুলিশের চেক পোস্ট। সন্দেহভাজন গাড়ী ও মানুষকে পুলিশের তল্লাশি করতে দেখা যায়।

নজরদারি প্রসঙ্গে র‌্যাবের মহা-পরিচালক (ডিজি) বেনজির আহমেদ বলেন, ‘গত বুধবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সারাদেশে র‌্যাব সদস্য মোতায়েন করা শুরু হয়েছে। তবে আগে থেকেই আমরা সারাদেশে র‌্যাবের কার্যক্রম শুরু করেছি। এছাড়া আমাদের গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।’

তিনি আরো জানান, ‘নির্বাচন সুষ্ঠ করার জন্য ল্যাব এক বছর ধরে কাজ করছে।এ কাজে ব্যাপক হুমকি ও চ্যালেঞ্জ ছিল। তবে এক বছরে অবৈধ অস্ত্র ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করি। কালোটাকার বিরুদ্ধেও আমরা অভিযান শুরু করেছি।’

এদিকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) সূত্রে জানা যায়, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে ঢাকাসহ সারাদেশে ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

এছাড়াও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনাবাহিনী দেশের ৩৮৯ উপজেলায় এবং নৌবাহিনী ১৮ উপজেলায় দায়িত্ব পালন করবে বলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান জানিয়েছেন।

নোয়াখালীর সেনবাগ এলাকা থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও পুলিশ নিয়ে ইউটিউবে মিথ্যা তথ্য ও অপপ্রচারের অভিযোগে জিয়াউর রহমান (২৭) নামের এক জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ। গ্রেফতারকালে তার হেফাজত থেকে মোবাইল, ল্যাপটপ, সিম ও ইউটিউব চ্যানেল জব্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশিনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘সে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে তার ইউটিউব চ্যানেলে সেনাবাহিনী দ্বারা পুলিশ মারপিটের ভুয়া ভিডিও আপলোড করে জননিরাপত্তা ক্ষতিগ্রস্ত করার চেষ্টা করছিল। প্রকৃতপক্ষে ওই ভিডিওটা ছিল বাংলাদেশ নেভীর একটি বিশেষ প্রশিক্ষণের অংশ বিশেষ। তার বিরুদ্ধে অঅইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে’।

এছাড়াও নির্বাচন ঘিরে নগরবাসীকে আশ্বস্ত করতে বিশেষ টহল অব্যাহত রেখেছে র‌্যাব। র‌্যাব-২ এর অপারেশন অফিসার এএসপি মোহাম্মদ সাইফুল মালিক বলেন, নির্বাচন সামনে রেখে নিয়মিত টহলের পাশাপাশি আমাদের বিশেষ টহল চলমান রয়েছে। এছাড়া আমাদের নির্ধারিত এলাকার মধ্যে নির্বাচন কমিশনসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে নিরাপত্তা তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে। অপরদিকে র‌্যাব-৩ এর অপারেশন অফিসার এএসপি বীনা রানী দাস বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনী পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে এবং জনমনে আস্থা তৈরিতে র‌্যাবের এই বিশেষ টহল কার্যক্রম চলমান থাকবে।

আবাসিক হোটেলে তল্লাশি প্রসঙ্গে র‌্যাব-২ এর অপারেশন অফিসার এএসপি মোহাম্মদ সাইফুল মালিক বলেন, গতকাল (২৬ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীর ফার্মগেট এলাকার হোটেলগুলোতে তল্লাশি চালানো হয়। ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন ঘিরে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এ অভিযান চালানো হচ্ছে। হোটেলে কোনো সন্ত্রাসী বা সন্দেহজনক কেউ অবস্থান করছে কিনা তা নিশ্চিত হতেই এ তল্লাশি। আমরা অবস্থানরতদের নাম-ঠিকানা যাচাই করছি। কোনো দুষ্কৃতিকারী যেন সেখানে অবস্থান নিতে না পারে সেজন্য হোটেল কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করা হচ্ছে।

এছাড়াও র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম বলেন, আমরা আশঙ্কা করছিলাম ৩০ তারিখের নির্বাচন ঘিরে বহিরাগত কিংবা অনভিপ্রেত কেউ হোটেলগুলোতে অবস্থান করতে পারে। সেই আশঙ্কা থেকেই হোটেলগুলোতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

সেখাকে কতজন বোর্ডার রয়েছেন, তাদের নাম ঠিকানা যাচাইসহ তারা কেন এসেছেন কিংবা কতোদিনের জন্য এসেছেন, তাদের কোনো অসৎ উদ্দেশ্য রয়েছে কিনা বিষয়গুলো নিশ্চিত হচ্ছি আমরা।

এদের মধ্যে কোনো বোর্ডারকে সন্দেহজনক মনে হলে কক্ষে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদও করা হচ্ছে। হঠাৎ করে কেউ চলে আসলো কিনা বিষয়গুলো আমাদের নজরদারিতে রয়েছে। এছাড়া বোর্ডারদের বিষয়ে হোটেল মালিকদের সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে।

ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮ ৮:০৪

(Visited 4 times, 1 visits today)