নিছকই চীনের দোষ, ভারতেও দেদারছে বিক্রি হয় কুকুরের মাংস!

নিছকই চীনের দোষ, ভারতেও দেদারছে বিক্রি হয় কুকুরের মাংস!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চীনের বন্য জন্তুর মাংস প্রচলনের কথা কে না জানে। করোনা সংক্রমণের পর থেকে যেন এই বিষয়টি আরো প্রকাশ্যে এসেছে। চীনের একটি বন্য জন্তুর হাট থেকে প্রথম সংক্রমণ ছড়ায় এমন ধারনা আসার পর থেকেই চীনের উপর চাপ বাড়তে থাকে বন্য পশুর হাট বন্ধের দাবিতে। কিন্তু চীনের মতো ভারতেও বন্য পশুর হাট, বিশেষ করে কুকুরের হাট বসে। সেখানে কুকুরের মাংস খুবই জনপ্রিয় হওয়ায় খুব এসব হাট সবসময়ই খুব জাঁকজমক থাকে।

কুকুরের মাংসের এই প্রচলন ভারতের নাগাল্যান্ডে। যা ভারতের উত্তর-পূর্ব দিকের একটি রাজ্য। নাগাল্যান্ডের ডিমাপুরের পশুবাজারের চিত্র খুবই ভয়াবহ। সেখানে কুকুর মেরে বিক্রির জন্য ঝুলিয়ে রাখা হয়। এখানে এক কেজি কুকুরের মাংস ২০০ টাকায় এবং একটি কুকুর বিক্রি হয় প্রায় ২ হাজার টাকায়।

তবে সম্প্রতি পশুপ্রেমীদের লাগাতার আন্দোলনের মুখে বিপদেই পড়েছেন নাগাল্যান্ডবাসীরা। নাগাল্যান্ড সরকার নিষেধাজ্ঞা জারি করে কুকুরের মাংস বিক্রি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে। শুধু তাই নয় মাংস বিক্রির সাথে সাথে খাওয়াও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে নাগাল্যান্ডের মুখ্যসচিব টেমজেন টয় শুক্রবার ট্যুইট করে জানান, রাজ্য সরকার কুকুরের বাণিজ্যিক আমদানির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাজ্যে কুকুর নিয়ে ব্যবসা সম্পূর্ণ বন্ধ। কুকুরের বাজারগুলি বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, নাগাল্যান্ড সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে রাজ্যের কোথাও কুকুরের মাংস (রান্না করা বা কাঁচা অবস্থায়) বিক্রি করা যাবে না।

ঢা/আরকেএস

(Visited 3 times, 1 visits today)