তীব্রগরমে পুড়ছে পঞ্চগড়ের জনজীবন

তীব্র গরমে পঞ্চগড়ে মহাসড়ক ফাঁকা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: জৈষ্ঠ্যমাসের তীব্র গরমে পুড়ছে পঞ্চগড়ের জনজীবন।গত দু’দিন ধরে প্রচন্ড গরমে হাঁসফাঁস করছে সর্বস্তরের মানুষ।

শুক্রবার (১৪ জুন) দুপুরে জেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রচণ্ড গরম ও রোদ্রের তাপদাহে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে খেটে খাওয়া মানুষ।আর বাড়ি থেকে বের হতে বেগ পোহাতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।প্রয়োজন হলে ছাতা নিয়ে বেড়িয়ে পড়ছেন।

আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জেলায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৩ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দুপুর ১২টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং বিকেল ৩ টায় ৩৭ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

এদিকে,তীব্র গরমে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে রয়েছে জেলার নিম্ন আয়ের মানুষগুলো। কৃষক, শ্রমিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবীরা প্রখর রোদের মধ্যে কাজ করতে পারেনি। ফলে তাদের বেকার সময় পার করতে হয়েছে।

কাজ করতে না পারায় আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে তারা। বিশেষ করে শ্রমজীবী মানুষেরা এই গরমে অনেকেই যাত্রাপথে ছাতা মাথায় দিয়ে নিজ নিজ গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করছেন।

আবার অনেকেই রাস্তার পাশে বিভিন্ন গাছের নিচে অবস্থান করছেন। তবে দুপুরের পর থেকে প্রচণ্ড রোদ ও তাপদাহের কারণে জেলার ব্যস্ততম রাস্তাগুলো জনসাধারণ শূন্য দেখা গেছে।

এদিকে দিন শেষে সূর্য ডোবার পরও তাপমাত্রা না কমায় শীতল হচ্ছে না চারপাশ। এতে করে দিন শেষেও সারারাত থাকছে গরম।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম বলেন,শুক্রবার দুপুরে ৩৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাএা রেকর্ড করা হয়েছে।শুক্রবার (১৪ জুন) রাত থেকে আকাশ কিছুটা মেঘাছন্ন থাকবে। শনিবার (১৫ জুন) বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ঢা/এমএম

(Visited 1 times, 1 visits today)