তারকারা সব মাঠে, নায়ক কেন ভিন্ন পথে?

  •  
  •  
  •  
  •  

বিনোদন ডেস্ক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চলছে নির্বাচনী প্রচারণা। প্রতিটি দলের এমপি প্রার্থীরাই সাধ্যমত প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। নানা প্রতিশ্রুতির কথা জানাচ্ছেন। শোবিজ তারকারাও তাদের নিজ নিজ দলের হয়ে চাইছেন ভোট। সোস্যাল মিডিয়ায় ভিডিও বার্তায় পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেয়ার আহবান জানাচ্ছেন।

ঠিক এই সময়ে ভিন্নপথে হাটলেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক বাপ্পি চৌধুরী। তিনি কোন দলের হয়ে ভোট নয়, দেশের ৩শ’ আসনে যারা এমপি হবেন তাদের কাছে চাইলেন ৩শ’ সিনেপ্লেক্স। বাপ্পি চৌধুরী বলেন, `যারা আমাদের নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হবেন তাদের কাছে একটি চাওয়া আমার। তিনশ’ এমপি যেন তাদের নির্বাচিত আসনে জনগণের বিনোদনের জন্য একটি করে মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল তৈরি করে দেন। এতে করে আমাদের বিনোদনের জায়গা তৈরি হবে। যুব সমাজ পর্যাপ্ত বিনোদনের জায়গা পেলে অপরাধ প্রবণ হয়ে উঠবে না। আমি মনে করি তারা চাইলেই এটা করা সম্ভব। তাদের কাছে ক্ষমতা এবং অর্থ দুটিই থাকবে।’

বাপ্পি চৌধুরী আরও বলেন, ‘বর্হিবিশ্বে যে কোন দেশ তারা নিজেদের রিপ্রেজেন্ট করে হয় সংস্কৃতি না হয় স্পোর্টেসের মাধ্যমে। আমরা খেলাধুলা অলরেডি করছি, এখন সিনেমার পালা, কারণ হলিউড, বলিউড বিশ্বব্যাপী তাদের দেশকে রিপ্রেজেন্ট করছে এই সিনেমা দিয়েই। আমাদেরও এখন এ বিষয়েটি ভেবে দেখতে হবে’

২০১৮ সালের অন্যতম আলোচিত নায়ক বাপ্পি চৌধুরী। এ বছর তার অভিনীত ‘নায়ক’ ছবি মুক্তি পায়। ছবিটিতে বাপ্পির অভিনয় ও লুক বেশ প্রশংসিত হয়। এছাড়াও মাহিয়া মাহির সঙ্গে পলকে পলকে তোমাকে চাই ছবিটিও ব্যবসায় বিচারে সফল হলে দাবী করেছেন ছবিটির প্রযোজক।

এমপিদের কাছে শুধু মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হলই নয় জেলা শহরগুলোকে ভার্চুয়াল সিটি বানানোর দাবিও জানিয়েছেন এ নায়ক। বাপ্পি বলেন, প্রতিটি জেলা শহরগুলোকে ভার্চুয়াল সিটি বানাতে পারলে বেশ ভালো হবে। যে সিটি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে, ট্রাফিক পুলিশ থাকবে না, সবকিছু কমিউটাররাইজড থাকবে’ পাশাপাশি দেশের ট্রাফিক নিয়ন্ত্রনের ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহারের আরও উৎকর্ষতা আনারও আহবান জানিয়েছেন ‘ভালোবাসার রঙ’খ্যাত এ নায়ক।

(Visited 8 times, 1 visits today)