ড. কামালের চেম্বার থেকে বেরিয়ে যা বললেন পুলিশ কর্মকর্তা

নিউজ ডেস্ক : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ঊর্ধ্বতন তিন কর্মকর্তা সাক্ষাৎ করেছেন। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ড. কামাল হোসেনের মতিঝিলের চেম্বারে তারা সাক্ষাৎ করেন।

ডিএমপি ঊর্ধ্বতন তিন কর্মকর্তা হলেন- পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) আনোয়ার হোসেন, সহকারী কমিশনার (এসি) শিবলী নোমান এবং মতিঝিল থানার ওসি। সাক্ষাৎ শেষে পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) আনোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘নরমাল ডিউটির অংশ হিসেবে আমরা এখানে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য এসেছি। তার (ড. কামাল) নিরাপত্তা-সংক্রান্ত কোনো অবজারভেশন আছে কি না- তা জানার জন্য। এটা নিয়ে খোলামেলা আলোচনা হয়েছে।’

কী বিষয়ে কথা হলো? ডিএমপি কমিশনার আসার কথা ছিল -এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা নিয়ে তার সঙ্গে আপনারা (সাংবাদিকরা) কথা বলতে পারেন। কী আলোচনা হয়েছে সে ব্যাপারে ডিটেইলস কিছু বলতে পারব না। আমি নরমাল ডিউটির অংশ হিসেবে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছি, দ্যাটস অল।’

কমিশনার মহোদয়ের সঙ্গে কী কথা হয়েছে, আর ড. কামাল কী বলেছেন- জানতে চাইলে ডিসি আনোয়ার বলেন, ‘তার সিকিউরিটি পারপাসে কথা হয়েছে’। ওনার (ড. কামাল) সিকিউরিটি কনসার্ন আছেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘উনি কনসার্ন হলে টেলিফোনে জানাবেন।’

ড. কামাল কি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ডিসি আনোয়ার বলেন, ‘না উনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এ জাতীয় তিনি কিছু বলেননি।’

নিরাপত্তার ব্যাপারে তাহলে স্বপ্রণোদিত হয়ে এসেছেন কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তার জন্য স্বাভাবিক ডিউটির অংশ হিসেবেই আমরা এসেছি।’

গতকাল মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে বৈঠকের এক পর্যায়ে সিইসি কে এম নূরুল হুদার সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এ সময় বৈঠক থেকে বেরিয়ে যান জাতীয় ঐক্যফ্রান্টের নেতারা। পরে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সংবাদ সম্মেলন করে সিইসি কে এম নূরুল হুদার পদত্যাগ চান।

(Visited 1 times, 1 visits today)