‘টপ টেরর’ পরিচয়ে ই-মেইলে টাকা চেয়ে হুমকি, প্রতারক গ্রেফতার

‘টপ টেরর’ পরিচয়ে ই-মেইলে টাকা চেয়ে হুমকি, প্রতারক গ্রেফতার
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘ওয়ান অব দ্যা টপ টেরর ইন বাংলাদেশ’ পরিচয় দিয়ে ই-মেইল প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে টাকা দাবির অভিযোগে মামুন মিয়া (৪১) নামের এক প্রতারকে গ্রেফতার করেছে সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগ। গ্রেফতারের পর তাকে রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হলে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মো. নাজমুল ইসলাম সুমন মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রোববার (২৪ নভেম্বর‌) বিকেলে রাজধানীর গুলিস্তান এলাকার সুন্দরবান স্কয়ার সুপার মার্কেট থেকে গ্রেফতার করা হয়।

নাজমুল ইসলাম সুমন জানান, গ্রেফতারকৃত মামুনকে সোমবার (২৫ নভেম্বর) সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করলে আদালত এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বর্তমানে সে পুলিশ রিমান্ডে রয়েছে।

এ বিষয়ে সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগের ওয়েব সাইট এন্ড ই-মেইল ক্রাইম টিমের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার সাইদ নাসিরুল্লাহ জানান,  গত ১৯ নভেম্বর তেজগাঁও থানায় ভিকটিম রুমানা রশিদের স্বামী অভিযোগ করেন যে, গত ৬ নভেম্বর তার স্ত্রীর ই-মেইলে ‘ওয়ান অব দ্যা টপ টেরর ইন বাংলাদেশ’ পরিচয়ে চাঁদা দাবী করে হুমকি দেয়া হয়।

হুমকিতে একটি চায়না ব্যাংক একাউন্ট দিয়ে বলা হয়, গুলশানের যেকোন হুন্ডি এজেন্টের মাধ্যমে দ্রুত চায়নিজ মুদ্রায় ১ লাখ আরএমবি সমপরিমাণ অর্থ পাঠাতে। সেই সাথে আরো বলা হয় আমাদের লোকজন আপনার বাসা ও পরিবারের লোকজন পর্যবেক্ষণ করছে। টাকা না দিলে জীবন দিতে হবে এবং এ বিষয়ে পুলিশকে জানানো যাবে না। অভিযোগের বর্ণনা শুনে ১৯ নভেম্বর তেজগাঁও থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়।

সাইদ নাসিরুল্লাহ আরো জানান, মামলা রুজুর পর উক্ত মামলা তদন্ত করে সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগের ওয়েব সাইট এন্ড ই-মেইল ক্রাইম টিম। তদন্তের এক পর্যায়ে তাকে গ্রেফতার করে সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মামুন বলে, মিথ্যা পরিচয় দিয়ে সে ই-মেইল হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করত বলে জানায়।

ঢা/ এনএএইচ/

 

নভেম্বর ২৬, ২০১৯ ৮:১৩

(Visited 6 times, 1 visits today)