চিরকুট লিখে কুলাউড়ায় কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

  •  
  •  
  •  
  •  

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় নিজ ঘরে শারমিন আক্তার (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৯ আগষ্ট) ভোরে উপজেলাল হাজীপুর ইউনিয়নের বালিয়াটিলা এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

শারমিন হাজীপুর ইউনিয়নের বালিয়াটিলা গ্রামে লাল মিয়ার মেয়ে। সে সুজা মেমোরিয়াল কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পরিবারের অজান্তে সে ঘরের ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁছিয়ে আত্মহত্যা করে শারমিন। গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে তার লাশ উদ্ধার করে।

শারমিনের শেষ লেখা চিরকুটটি পুলিশ উদ্ধার করেছে। শেষ লেখা চিরকুটটি,আমার আব্বা, আম্মা ও ভাই আমাকে খুব আদর করেন। সবাই আমাকে ভালোবাসেন। আমার মা-বাবা আমাকে বিয়ে দিতে চাইছিলেন। আমি এই মুহূর্তে বিয়ের জন্য প্রস্তুত নই।

কিন্তু বিয়েতে অমত করলে আমার মা বাবা কষ্ট পাবেন। আমি আমার মা-বাবাকে কষ্ট দিতে চাই না। তাই এই পথ বেছে নিয়েছি। আমি জানি ওপারে অগ্নি চুল্লিতে আমি জ্বলবো। তবুও আমাকে সবাই মাফ করে দিয়েন।

চিরকুটে আরও সে লিখে, আমার জীবনের ১৬টি বছর খুব সুন্দর ছিলো। কিন্তু ১৭তম বছরে অনেক কিছু ঘটে গেছে।

কুলাউড়া থানার এসআই মো:রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ঢা/ইআ/এসআর

আগস্ট ১৯, ২০১৯ ১:৪২

(Visited 1 times, 1 visits today)