চাঁদাবাজির মামলায় আশকোনার সিরাজ হোটেলের মালিক মোমতাজ উদ্দিন গ্রেফতার

  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদাবাজি, জমি দখল ও নৈরাজ্য সৃষ্টির অভিযোগে এক প্রবাসীর স্ত্রীর করা মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন রাজধানীর দক্ষিণখানের আশকোনার সন্ত্রাসী মোমতাজ উদ্দিন ওরফে মোন্তাজ।

আশকোনা হাজী ক্যাম্প রোডের এক প্রবাসীর বাড়ি নির্মান বন্ধ করে দিয়ে ভাংচুর ও চাঁদা দাবি করার অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেছিলেন প্রবাসী নুরুল হুদা আবুর স্ত্রী নিলুফা খানম।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোমতাজ উদ্দিন ওরফে মন্তাজ উদ্দিন হাজী ক্যাম্প সংলগ্ন সিরাজ হোটেলের মালিক। হোটেল ব্যবসার সূত্র ধরে সে প্রভাব বিস্তার করে তার নিজস্ব বাহিনী গড়ে তোলে।

ওই বাহিনী স্থানীয় বিভিন্ন ইস্যুতে ব্যবহারসহ চাঁদাবাজি, নৈরাজ্য সৃষ্টি তথা মারধোর করা, হুমকী বা ভয়ভীতি দেখিয়ে আতংক সৃষ্টি করতো।

এরই ধারাবাহিকতায় সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী নুরুল হুদা আবুর ৫৪৭, হাজী ক্যাম্প রোড আশকোনার বাড়িটির নির্মাণ কাজে বাধা দিয়ে চাঁদা দাবি করে।

এ সময় তারা বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ভেতরে মাদকের আখড়া বসায়। পরবর্তীতে চাঁদার টাকা না দিলে মেরে ফেলার হুমকী দেয়।

মামলা সুত্রে জানাজায়, মোন্তাজ উদ্দিন এক প্রবাসীর জমি দখল চেষ্টা করে এবং প্রবাসীর কাছে থেকে ৩০ লাখ টাকা চাদা দাবি করেন৷

গত ২০১৮ সালের ১০ এপ্রিল দাবি করা চাঁদার টাকার দাবিতে বাউন্ডারি দেয়াল ভাংচুর ও ঘরে ঢুকে লুটপাট চালায়।

এতে প্রবাসীর স্ত্রী  নিলুফা খানম বাদী হয়ে দক্ষিণ খাঁন থানায় মোন্তাজ উদ্দিনকে আসামী করে একটি চাদাবাজির মামলা করেন, মামলা নং ১৩৬/১৮ । গত বছরে ২২ মে মামলাটি ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত -১৩ তে দায়ের করা হয়।

মামলার অপর আসামীরা হচ্ছে, আশকোনার মৃত আব্দুল জায়েদের ছেলে মোঃ আহসান হাবিব মুরাদ ও মোঃ হাবিবুর রহমান, মৃত জনব আলীর ছেলে মোঃ সুরুজ মিয়া ও মোঃ বিপুল।

দক্ষিণ খান থানার পুলিশ সুত্রে জানায়, প্রবাসীর কাছ থেকে চাঁদা দাবী করায় তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি ছিল। কিন্তু এতোদিন গা-ঢাকা দিয়ে থাকায় তাঁকে আটক করা যায়নি।

তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করে দক্ষিণখান থানা সূত্র।

ঢা/এমএম

সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯ ২:১০

(Visited 26 times, 1 visits today)