গোপনে গৃহবধুর গোসল দেখতে বাঁধা দেওয়ায় অন্তসত্তা ননদ ও স্বামী লাঞ্চিত

  •  
  •  
  •  
  •  

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাঘমারা গ্রামে গোপনে গৃহবধুর গোসল দর্শনে বাধা দেওয়ায় স্বামী ও অন্তসত্তা ননদকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি ২৩ আগষ্ট দুপুর ১২টার দিকে ঘটেছে।

কমলগঞ্জ থানায় দায়ের করা অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কমলগঞ্জের বাঘমারা গ্রামের ফাতেমা খাতুন (৪০) বাড়ির গোসল খানায় গোসল করা অবস্থায় পাশের বাড়ির মো: খলিল মিয়া লুকিয়ে তার গোসল করা দেখছিলো।

ফাতেমা বেগম তাদেরকে দেখে প্রতিবাদ করলে অভিযুক্তরা গালিগালাজ করে চলে যায়। পরে ঐ দিন রাত ৮টার দিকে খলিল মিয়া তার বাড়ির কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র, রড় নিয়ে এসে অভিযোগকারীর স্বামীকে এলপাথাড়ী মারধর করে এবং ৩মাসের অন্তসত্তা ননদকে চুলের মুটি ধরে মারধর করে।

এসময় অভিযোগকারীর গলায় থাকা ২৩০০০টাকা মূল্যেও গলার চেইন ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অভিযুক্তরা বিভিন্নভাবে অভিযোগকারীদের ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে অভিযুক্তদের সাথে মোবাইলে যোগযোগ করার চেষ্টা করেও তা সম্ভব হয়নি।

ঢা/এসআর/জেডআই

আগস্ট ২৬, ২০১৯ ৩:৪৯

(Visited 14 times, 1 visits today)