গলায় ফাঁস দিয়ে তরুণ অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

  •  
  •  
  •  
  •  

বিনোদন ডেস্ক: গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তরুণ মডেল ও অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস। বিনোদন অঙ্গনে তাঁর পথচলা বেশি দিনের নয়। এরই মধ্যে অজানা অভিমানে আত্মঘাতী হলেন তিনি।

লরেনের পরিবারের বরাত দিয়ে গুলশান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, বাবা মায়ের সাথে অভিমান করে আজ সকাল ৭টার দিকে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। এসময় তার মা বাসার বাইরে ছিলেন। ঝুলন্ত অবস্থা থেকে লাশটি নামায় তার বাবা। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

তিনি আরও জানান, লরেন মেন্ডেস খুব স্বাধীন চেতা ছিলেন। যখন তখন বাড়ির বাহিরে যেতেন। এ নিয়ে বাবা-মায়ের সাথে প্রায়ই কথা কাটাকাটি করতেন তিনি। পরিবারের ধারণা, এসব থেকেই লরেন অভিমানে গলায় ফাঁস দেন।

‘ইন্টারনেট শেষ হলেও, নো টেনশন’ এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত এই সংলাপটি দিয়ে আলোচনায় আসেন লরেন। পুরো নাম লরেন মেন্ডেস, ধর্মে খ্রিষ্টান। ক্যারিয়ারের শুরুটা মডেলিং দিয়ে হলেও পরিচিতি পেয়েছেন বিজ্ঞাপন দিয়ে। শুরুর দিকে এয়ারটেলের বেশ কিছু ফটোশুটে অংশ নেন। এরপর টানা এয়ারটেলের কয়েকটি বিজ্ঞাপনে কাজ করে আলোচনায় চলে আসেন তিনি। বিজ্ঞাপন ছাড়াও তাকে দেখা গিয়েছে মিউজিক ভিডিওতে। ‘ঘোর’ শিরোনামে তপু খান ও কণার একটি দ্বৈত গানের ভিডিওতে মডেল হিসেবে হাজির হন তিনি। প্রেক্ষাগৃহের ব্যানারে নির্মিত এই ভিডিওতে তার সাবলীল অভিনয় নজর কেড়েছে সবার।

লরেনকে দেখা গেছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‌‘অমর প্রেম’-এ। সর্বশেষ লরেন শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন সঞ্জয় সমদ্দার পরিচালিত ‘ট্রল’ নাটকের শুটিংয়ে।

আগস্ট ৩০, ২০২০ ৮:০৬

(Visited 154 times, 1 visits today)