কিশোর মুর্তাজাকে দেয়া মৃত্যুদণ্ড বাতিল করেছে সৌদি আরব!

  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সৌদি আরবে ২০১১ সালে সরকারবিরোধী স্লোগান দেয়ার অভিযোগে ১৩ বছর বয়সে আটক হওয়া মুর্তাজা কুরেইরিসকে দেয়া মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে দেশটির সরকার। একই সাথে তাকে ২০২২ সাল নাগাদ মুক্তি দেয়া হতে পারে।

গতকাল শনিবার (১৫জুন)দেশটির এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা জানান।

ওই  কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে বলেন, মুর্তজাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হচ্ছে না। যদিও সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে  আনুষ্ঠানিক কোনও বিবৃতি দেয়া হয়নি।

সিএনএন সূত্রে বলা হয়, ২০১১ সালে  সৌদি রাজতন্ত্রের নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্র দাবিতে সেসময় দেশজুড়ে যে গণবিক্ষোভের সূচনা হয়,

মুর্তাজা কুরেইরিস গণবিক্ষোভের অংশ হিসেবেই তার বন্ধু-বান্ধবদের নিয়ে সাইকেল রাইডে নেমেছিল। সৌদি সরকার এই অল্পবয়সী বালকদের জড়ো হওয়ার বিষয়টি সেসময় ‘পর্যবেক্ষণ’ করে ।

ওই বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার কারণে তিন বছর পর মুর্তাজাকে ১৩ বছর বয়সে বাহরাইনে চলে যাওয়ার সময় পরিবারের সঙ্গে সীমান্তে গ্রেফতার করে।এমনকি সৌদি আরবের ইতিহাসে ‘রাজনৈতিক বন্দী’সবচেয়ে কম বয়সী  হিসেবে মুর্তাজাকে পাঠানো হয় কারাগারে।

অভিযোগপত্রে বলা হয়, মুর্তাজার ভাই আলী কুরেইরিস মোটরসাইকেল যোগে পূর্বাঞ্চলীয় শহর আওয়ামিয়াতে গিয়ে থানায় পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করেন, সেসময় তার সঙ্গে ছিল মুর্তাজাও। মুর্তাজার ভাইকে পরে নির্মমভাবে হত্যা করে সৌদি নিরাপত্তা বাহিনী।

ঢা/ইআ

জুন ১৬, ২০১৯ ৫:৩২

(Visited 1 times, 1 visits today)