কাশ্মীরে বাতিল হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ

  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গেল আগস্টে ভারত সরকার কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার পর থেকে গত চার মাস ধরে সেখানকার মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছে না।

এ কারণে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার না করতে পারায় হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ তাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিচ্ছে।

মেসেজিং সেবাদানকারী হোয়াটসঅ্যাপের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান ফেইসবুক বলেছে, ইন্টারনেট সংযোগ ফিরে পাওয়ার পর ব্যবহারকারীদের নতুন করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপগুলোতে যুক্ত হতে হবে।

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী ভারতে। সেখানে এই অ্যাপটি ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪০ কোটি।

হোয়াটসঅ্যাপের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ‘বিশ্বের সবখানে ব্যবহারকারীদের নিরাপদ যোগাযোগের সুবিধা দিতে চায় হোয়াটসঅ্যাপ। কিন্তু নিরাপত্তার খাতিরে কোনো অ্যাকাউন্ট ১২০ দিন নিষ্ক্রিয় থাকলে সেগুলোর মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়।

এই ঘটনা যখন ঘটে, ঐ অ্যাকাউন্টগুলো আপনা থেকেই সব গ্রুপ থেকে বের হয়ে যায়। ইন্টারনেট সংযোগ পাওয়ার পর আবার নতুন করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যোগ দিতে হবে তাদের।’

কাশ্মীরে ইন্টারনেট বন্ধ করার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রাহমানইয়াম জয়শঙ্কর বলেছেন, ‘সামাজিক মাধ্যম ও ইন্টারনেট ব্যবহার করে সেখানকার মানুষের মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী মনোভাব তৈরি করা হচ্ছে।’

দীর্ঘদিন নিষ্ক্রিয় থাকার কারণে ভারত শাসিত কাশ্মীরের হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট বাতিল করে দিচ্ছে অ্যাপ কর্তৃপক্ষ।

ঢা/তাশা

ডিসেম্বর ৭, ২০১৯ ১২:২৯

(Visited 1 times, 1 visits today)