করোনায় পৃথিবীর মায়া ছাড়লেন সাড়ে ৪ লাখ মানুষ

করোনায় পৃথিবীর মায়া ছাড়লেন সাড়ে ৪ লাখ মানুষ
  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে বিশ্বের সাড়ে ৪ লাখের বেশি মানুষ পৃথিবী ছেড়ে ওপারে চলে গেছেন। এই ভাইরাসে আক্রান্ত প্রায় ৮৪ লাখ মানুষ। এখনও কার্যকরি কোন ভ্যাকসিন হাতে না পাওয়ায় এ সংখ্যা কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় তা জানা নেই কারো।

অন্যদিকে, এক মহাদেশ থেকে অন্যটিতে হানা দিচ্ছে ভাইরাসটি। হাতেগোনা কয়েকটি দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলেও মুক্ত হচ্ছে না পুরোপুরি। এমনকি নিয়ন্ত্রণে আসা উৎপত্তিস্থল চীনে দ্বিতীয় দফা আঘাত হানতে যাচ্ছে ভাইরাসটি। কম করে হলেও প্রতিদিনই সেখানে নতুন করে আক্রান্তের খবর আসছে গণমাধ্যমগুলোতে।

এখন পর্যন্ত করোনার সবচেয়ে ভুক্তভোগী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও লাতিন আমেরিকার ব্রাজিল। এতে যোগ হয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার ভারত।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) বাংলাদেশ সময় সকাল পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের তালিকায় যুক্ত হয়েছে বিশ্বের ১ লাখ ৪২ হাজার ৮৭২ জন মানুষ। এতে করে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ৮৩ লাখ ৯৩ হাজার ৯৬ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ গেছে আরও ৫ হাজার ২৬৪ জনের। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা ৪ লাখ ৫০ লাখ ৪৫২ জনে ঠেকেছে। আর সুস্থ হয়ে এখন পর্যন্ত হাসপাতাল ছেড়েছেন ৪৪ লাখ ১৫ হাজারের মতো মানুষ।

এর মধ্যে শুধু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই আক্রান্তের সংখ্যা ২২ লাখ ৮ হাজার ৪০০ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণহানি ঘটেছে দেশটির ১ লাখ ১৯ হাজার ৯৪১ জন মানুষের।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণ ও প্রাণহানির দেশ ব্রাজিলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৬০ হাজার ৩০৯ জনে। প্রাণহারিয়েছে এখন পর্যন্ত ৪৬ হাজার ৬৬৫ জন।

আক্রান্তের তালিকায় তিনে থাকা রাশিয়ায় সংক্রমিতের সংখ্যা সাড়ে ৫ লাখ ছাড়িয়েছে। দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৭ হাজার ৪৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়।

সংক্রমণে চারে থাকা দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে সংক্রমণ ৩ লাখ ৬৭ হাজার পেরিয়েছে। প্রাণহানি ঘটেছে ১২ হাজার ২৬২ জনের।

যুক্তরাজ্যে সংক্রমণ ৩ লাখ ছুঁই ছুঁই। মৃতের সংখ্যা ৪২ হাজার ১৫৩ জন।

নিয়ন্ত্রণে আসা স্পেনে করোনার ভুক্তভোগী ২ লাখ প্রায় ৯১ হাজার ৭৬৩ জন মানুষ। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ২৭ হাজার ১৩৬ জনের। টানা নয়দিন মৃত্যু শূন্য দেশটি।

ইউরোপে প্রথম আঘাত হানা ইতালিতে ২ লাখ প্রায় ৩৮ হাজার মানুষ করোনার শিকার। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৪ হাজার ৪৪৮ জনের।

আক্রান্ত ২ লাখ ৩৮ হাজারের কাছাকাছি লাতিন আমেরিকার দেশ পেরুতে। মৃত্যু ৭ হাজার ২৫৭ জন। ইরানে আবারও বেড়েছে সংক্রমণ। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯৫ হাজার ছাড়িয়েছে ইসলামি প্রজাতান্ত্রিক দেশটিতে। প্রাণ গেছে ৯ হাজার ১৮৫ জনের।

জার্মানিতে আক্রান্ত ১ লাখ ৯০ হাজার অতিক্রম করেছে। এখন পর্যন্ত ইউরোপের দেশটিতে ৮ হাজার ৯২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিলিতে ১ লাখ ৮৪ হাজার পেরিয়েছে। এর মধ্যে প্রাণ গেছে ৩ হাজার ৬১৫ জনের।

মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে লাতিন আমেরিকার আরেক দেশ মেক্সিকো। যেখানে সংক্রমণ ১ লাখ প্রায় ৫৯ হাজার। প্রাণহানি এখন পর্যন্ত ১৯ হাজারের বেশি।

দক্ষিণ এশিয়ার আরেক ভুক্তভোগী পাকিস্তানে আক্রান্ত ১ লাখ ৫৫ হাজার ছুঁই ছুঁই। মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৯৭৫ জনের।

আর বাংলাদেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া তথ্যমতে, গতকাল বুধবার পর্যন্ত করোনার শিকার ৯৮ হাজার ৪৮৯ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৩০৫ জনের। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৩৮ হাজার ১৮৯ জন।

ঢা/কেএম

(Visited 6 times, 1 visits today)