কবি নজরুল সরকারি কলেজের সকল সমস্যার সমাধান হবে: শিক্ষামন্ত্রী

  •  
  •  
  •  
  •  

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি: রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী ও পুরনো বিদ্যাপিঠ কবি নজরুল সরকারি কলেজের আবাসন, একাডেমিক ভবন, শিক্ষক, পরিবহন সংকটসহ অন্যান্য সমস্যা সমাধান করার আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বুধবার (৪ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় কবি নজরুল সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের ভাস্কর্য ‘মুক্তি সোপান’ উদ্ধোধন করার সময় এসব কথা বলেন তিনি।

‘মুক্তি সোপান’ উদ্ধোধনের পূর্বে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) কবি নজরুল সরকারি কলেজ শাখার চৌকস ক্যাডেটরা শিক্ষামন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

সেই সাথে কবি নজরুল সরকারি কলেজের শিক্ষকরাও কলেজের পক্ষ থেকে শিক্ষামন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কলেজের পাশে পড়ে থাকা পরিত্যক্ত ডাফরিন হলের জায়গায় বহুতল ভবন নির্মাণ করে থানা শিক্ষা অফিসকে ২টি ফ্লোর ও বাকি ফ্লোরগুলো কবি নজরুল সরকারি কলেজকে দেওয়া হবে।

কলেজে ১০ তলা ভবন নির্মাণের যাবতীয় জটিলতা নিরসন করে দ্রুত নির্মাণ কাজ শুরু করারও আশ্বাস দেন তিনি।

পাশাপাশি কলেজের পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা জায়গাগুলোতে একাডেমিক ভবন অথবা হল নির্মাণের করা হবে।

কবি নজরুল সরকারি কলেজের শহীদ শামসুল আলম ছাত্রাবাসটিকে সংস্কার ও দখল হয়ে যাওয়া জায়গাগুলোও পুনরুদ্ধার করে বহুতল ভবন নির্মাণ এবং কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াত সমস্যা সমাধানে পরিবহন সংকট নিরসনের কথাও বলেন তিনি।

এসময় শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত ৭ কলেজের শিক্ষার মান বৃদ্ধি এবং শিক্ষক সংকটসহ অন্যান্য সমস্যাগুলো নিয়ে কলেজগুলোর অধ্যক্ষদের সাথে আলোচনা করা হয়েছে।

এসকল সমস্যা সমাধানে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশে এই প্রথম কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ গ্রানাইট পাথরে খোদাই করে ৩০ ফিট দেওয়ালে ভাস্কর্য হিসেবে তুলে ধরায় কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষকে অভিনন্দন জানান শিক্ষামন্ত্রী।

বলেন, ৭ ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কো থেকে স্বীকৃতি পাওয়ার পর বিশ্বের দরবারে শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়।

এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে মাদক ও জঙ্গিবাদ থেকে দূরে থাকার আহবান জানান।

এই অনুষ্ঠানে কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকারের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের সচিব মুনশী শাহাবুদ্দিন আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, কবি নজরুল সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ ড. খালেদা নাসরিন ও শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক অধ্যাপক মুহাম্মদ আকবর হুছাইন।

ঢা/এমডিআই/তাশা

ডিসেম্বর ৫, ২০১৯ ১০:৫৩

(Visited 10 times, 2 visits today)