এবারের হজে থাকছে ভিন্ন কিছু নিষেধাজ্ঞা

এবারের হজে থাকছে ভিন্ন কিছু নিষেধাজ্ঞা

ঢাকা১৮ ডেস্ক: করোনা সংক্রমণ এড়াতে এবারে হজ পালন হবে সীমিত পরিসরে। একই কারণে হজ পালনে সৌদি আরবের জাতীয় রোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ বিশেষ কিছু স্বাস্থ্যবিধিও জারি করেছে।

নতুন এ স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী, কাবা শরিফে ও কালো পাথরে চুমু খেতে বা স্পর্শ করতে পারবেন না হজ পালনকারীরা। এছাড়া শয়তানের উদ্দেশ্যে পাথর ছুড়ে মারার জন্য ব্যবহার করতে হবে আগে থেকে জীবানুমুক্ত প্যাকেটজাত পাথর।

এ বিষয়ে সৌদি গ্যাজেটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হজ পারমিট ছাড়া হজের জন্য পবিত্র স্থান মিনা, মুযদালিফা ও আরাফাতের ময়দানে প্রবেশ ১৯ জুলাই (২৮ জিলক্বদ) থেকে হজের পঞ্চম দিন ১২ জিলহজ পর্যন্ত নিষিদ্ধ থাকবে।

এছাড়াও উচ্চ মাত্রার জ্বর, কফ, গলা ব্যাথা ও হঠাৎ ঘ্রাণ ও স্বাদ হারিয়ে ফেলার মতো উপসর্গ থাকা ব্যক্তিকে হজ করতে দেয়া হবে না।

হজ পালনকারী ও হজে দায়িত্বপালনকারীদের অবশ্যই সুরক্ষা মাস্ক পড়তে হবে।

খাবার পানি ও জমজমের পানি একবার ব্যবহারযোগ্য কন্টেইনারে সংগ্রহ করা যাবে।

হজ পালনকারীদের মধ্যে অন্তত দেড় মিটার দূরত্ব রাখতে হবে।

মক্বার গ্রান্ড মস্কো ও পবিত্র স্থানগুলোর রেফ্রিজারেটর ব্যবহার করা যাবে না।

হজ পালনকারীদের প্রত্যেককে আগে থেকে প্যাকেটজাত খাবার দেওয়া হবে।

আরাফাত ও মুযদালিফায় হজ পালনকারীদের অবশ্যই নির্ধারিত স্থানে অবস্থান করতে হবে।

তাবু এলাকার ৫০ বর্গমিটারের মধ্যে ১০ জনের বেশি হজ পালনকারী থাকতে পারবে না।

সবশেষে তওয়াফের জন্য কাবার চারপাশ এবং সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের মধ্যে দৌড়ানোর স্থানকে প্রতি দল হজ পালনকারী ব্যবহারের আগে ও পরে জীবাণুমুক্ত করা হবে।

উল্লেখ্য, মহামারীর কারণে এবার কোনো বিদেশিকে হজ করতে দিচ্ছে না সৌদি আরব। শুধু তারাই হজ করতে পারবেন, যারা আগে থেকেই সেখানে অবস্থান করছেন।

ঢা/আরকেএস

(Visited 2 times, 1 visits today)