উলঙ্গ হয়ে থাইল্যান্ডে ‘তাণ্ডব’ চালালেন বাংলাদেশি নারী , নিন্দার ঝড়

  •  
  •  
  •  
  •  

ঢাকা১৮ ডেস্ক: থাইল্যান্ডে গিয়ে বাংলাদেশের মুখ ‘পোড়ালেন’ এক নারী। থাইল্যান্ডে বৌদ্ধ মঠে উঠে বাংলাদেশের ওই নারী পর্যটক মাতাল অবস্থায় বিবস্ত্র হয়ে তিনি পথচারীদের উদ্দেশে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গিও করেন বলেও অভিযোগ।
জানা গেছে, অভিযুক্ত ওই মহিলার নাম ফারাহ হক। বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে নিন্দার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মাধ্যমে।

সোমবার সন্ধ্যায় থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে চিয়াং মাই এলাকার একটি বৌদ্ধ উপসানলয়ে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে থাইল্যান্ড পুলিশ। স্থানীয়রা জানান, ওই বৌদ্ধ উপসনালয়ের গেটে দাঁড়িয়ে-বসে সম্পূর্ণ বিবস্ত্র অবস্থায় ওই তরুণী কুরুচিকর ভাষার চিৎকার করছিলেন। সেই সময় কয়েকজন এগিয়ে এসে তাকে সেখান থেকে চলে যেতে বললে তাঁদেরও গালিগালাজ শুরু করেন ফারাহ। এরপরই খবর যায় পুলিশ। পুলিশ এসে ওই মহিলাকে আটক করে স্থানীয় সুয়ান প্রুং সাইক্রিয়াটিক হাসপাতালে ভর্তি করে।

থাইল্যান্ডের চিয়াং মাই থানার পুলিশ কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল সোমকিত ফুসোদের কথায়, ‘ফারাহ প্রথমে একজন পর্যটক হিসেবে থাইল্যান্ডে আসেন। এরপর গত এপ্রিল মাস থেকে সেখানকার একটি স্থানীয় স্কুলে ইংরেজি শিক্ষিকা হিসেবে কাজে যোগ দেয় ফারাহ হক। থাকার জন্যে বেছে নেন শহরেরই একটি হস্টেল। তাঁর বয়স ২৮ বছর বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ইতোমধ্যেই বিষয়টি জানানো হয়েছে থাইল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাসে। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর ফারাহকে শাস্তি ও জরিমানা করা হতে পারে বলে জানা গেছে। ইন্ডিয়া টাইমস ।

আগস্ট ১২, ২০২০ ৯:৩৮

(Visited 712 times, 1 visits today)