আসন্ন কমলগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি?

আসন্ন কমলগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি?
  •  
  •  
  •  
  •  

সোহেল রানা : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনের কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি এ প্রশ্ন ঘোরপাক খাচ্ছে পৌরবাসীর মুখে মুখে। কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি হওয়ার জন্য আওয়ামী লীগের চার নেতা দোড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ঘোষিত আগামী ডিসেম্বরে মেয়াদ উত্তির্ণ পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন বর্তমান মেয়র জুয়েল আহমদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও ৮নং ওর্য়াড কাউন্সীলর আনোয়ার হোসেন, কমলগঞ্জ উপজেলা সড়ক ও পরিবহন শ্রমিক লীগের সভাপতি হেলাল মিয়াসহ, কমলগঞ্জ কৃষক লীগের যুগ্ন আহবায়ক ৯নং ওর্য়াড কাউন্সিলার রাসেল মতলিব তরফরদার।

চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সর্বত্রই নির্বাচনের আগাম হাওয়া বিরাজ করছে। নানা আড্ডায় উঠে আসছে পৌরসভার বর্তমান হালচাল। পৌরসভা নির্বাচনের ভোটের সম্ভাবনা থাকায় যেন নড়েচড়ে বসছেন ভোটারসহ সম্ভাব্য প্রার্থীরা।

সরেজমিন দেখা গেছে, করোনা মাহামারীতে খাদ্যসামগ্রী ও আর্থিক সহায়তা করে অনেকেই আলোচনায় এসেছেন। আবার অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে ভোটারদের দোয়া চেয়ে ভাইরাল হচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা ও সামাজিক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে দলের নেতা-কর্মী ও ভোটারদের আকৃষ্ট করে নিজের অবস্থান শক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

দলীয় মনোনয়নের টিকিট পেতে দলের তৃণমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় নেতা পর্যন্ত ব্যস্ত সময় পার করছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা আগাম মাঠে নেমে পড়ায় এবার কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে কে পাবেন ক্ষমতাসীন আ’লীগের দলীয় নৌকার মনোনয়ন-এ নিয়ে চলছে সাধারন ভোটারদের মাঝে চলছে নানা জলপনা কল্পনা। কে যোগ্য? আর কে অযোগ্য তা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় নানা মহলে হচ্ছে বিচার বিশ্লেষণ।

উল্লেখ্য, কমলগঞ্জ পৌরসভা ১৯৯৯ ইং স্থাপিত হয়। বিগত কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর। তখন পৌর চেয়ারম্যান পদের বিপরীতে প্রার্থী হয়েছিলেন ৭ জন। প্রথম বারের মতো তরুন প্রার্থী মো. জুয়েল আহমেদ (নৌকা প্রতিক) নিয়ে ৩৯৯০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছিলেন এবং কমলগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী চেয়ারম্যান পদটি দখলে নেয়।

এদিকে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সতন্ত্র প্রার্থী জাকারিয়া হাবিব বিপ্লব (তালগাছ) ভোট পেয়েছিলেন ২৮০৪ ও বিএনপি’র প্রার্থী আবু ইব্রাহিম জমসেদ(ধানের শীষ) ২১৩৩ ভোট পেয়েছিলেন অপরদিকে বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী হাছিন আফরোজ চৌধুরী (জগ) ৪২৬ ভোট, রফিকুর আলম ভোট পেয়েছিলেন ৮০,নজরুল ইসলাম ভোট পেয়েছিলেন ৮০ এবং মাসুক আহমদ ভোট পেয়েছিলেন ২৩টি।

বর্তমানে ২০২০ সালের নির্বাচনে কমলগঞ্জ পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার হচ্ছেন ১৫২০৩ জন। তন্মধ্যে পুরুষ ৭৬০০ এবং মহিলা ৭৬০৩ জন।

ঢা/আরকেএস

সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ ৮:২৮

(Visited 29 times, 1 visits today)